facebook pixel
chevron_right Top
transparent
প্রবল বৃষ্টিতে বিপর্যস্ত মুম্বই, বিপাকে ট্রেন-বিমান পরিষেবা , কী বলছে আবহাওয়ার পূর্বাভাস
এরাজ্যের পাশাপাশি মুষলধারার বৃষ্টিতে বিপর্যস্ত মুম্বইও। রবিবার রাত থেকে প্রবল বৃষ্টি শুরু হয় মায়ানগরীতে। বৃষ্টির ফলে মুম্বইয়ের বিবিন্ন জায়গায় জল দাঁড়াতে শুরু করে। বিপর্যস্ত হতে শুরু করে স্বাভাবিক জনজীবন। বৃষটির জেরে ওয়াডালাতে ধসে গিয়েছে একটি বাড়ি। যদিও কোনো হতাহতের খবর সেখান থেকে পাওয়া যায়নি। এদিকে, রবিবার মুম্বইতে প্রবল বৃষ্টিতে গাছ পড়ে আহত হয়েছেন ৫ জন। বিভিন্ন জায়গায় দল দাঁড়িয়ে যাওয়ায় থমকে গিয়েছে শহরের ট্রাফিক। মুষলধারায় বৃষ্টিপাতের জন্য আরব সাগর পারের এই শহরে ৪ থেকে ১৪ মিটার উঁচু ঢেউ আছড়ে পড়ার আশঙ্কা করছেন আবহাওয়াবিদরা।
সেনাকর্তার সঙ্গে অবৈধ সম্পর্কে নারাজ হয়েই খুন মেজরের স্ত্রী
সেনাকর্তা অমিত দ্বিবেদীর স্ত্রী শৈলজা দ্বিবেদীকে বিয়ে করতে চেয়েছিলেন মেজর নিখিল হান্ডা। তবে মেজরের ইচ্ছেতে সহমত হননি শ্রীমতি দ্বিবেদী। তাতেই প্রতিহিংসা পরায়ণ হয়ে তাঁর গলার নলি কেটে খুন করেন মেজর হান্ডা। পরে পুলিশকে বিভ্রান্ত করতে শৈলজাদেবীর দেহ গাড়ি থেকে ফেলে দিয়ে চাকায় পিষে দেন। তদন্তে উঠে এসেছে এই চাঞ্চল্যকর তথ্য। সেনা ক্যান্টনমেন্ট হাসপাতালের বাইরের সিসিটিভি ফুটেজে দেখা যায় মেজরের হন্ডাসিটি গাড়ি। হাসপাতাল থেকে বেরিয়ে ওই গাড়িতেই উঠেছিলেন শ্রীমতি দ্বিবেদী। তাই অমিত দ্বিবেদীর ঠিক করে দেওয়া গাড়ির চালক ম্যাডামকে খুঁজে পাননি।
'নেহেরু থেকে মোদী, নেতাজীর অন্তর্ধান রহস্য উন্মোচনে আন্তরিক নন কেউ'
নেহরু থেকে শুরু করে মোদী সরকার, ভারতের সব প্রশাসনই নেতাজির অন্তর্ধানের বিষয়ে আসল ঘটনা জানে। কিন্তু কোনও সরকারই তাঁর চিতাভস্ম দেশে ফেরানোর উদ্যোগ নেয়নি। এমনই দাবি নেতাজি সুভাষচন্দ্র বসুর প্রপৌত্র আশিস রায়ের৷ এক বইতে বেশ কিছু বিস্ফোরক মন্তব্য করেছেন তিনি৷ তাঁর মতে টোকিওর রেনকোজি মন্দির নেতাজির চিতাভস্ম সংরক্ষণের খরচ দেয়। তাঁর পরিবারের কিছু লোকজন এবং কয়েকটি রাজনৈতিক দল চিতাভস্ম দেশে ফেরানোর প্রস্তাবে আপত্তি জানিয়েছে।
বিয়ের অনুষ্ঠানে খাবার নিয়ে হাতাহাতির জেরে মৃত্যু যুবকের
বাকবিতন্ডা, তাতেই বিয়েবাড়ির আনন্দ বদলে গেলো শোকের আবহে। খাবার নিয়ে বচসা, তা থেকেই হাতাহাতি। শেষপর্যন্ত প্রাণ গেল এক যুবকের। তবে কী এমন কথাকে কেন্দ্র করে এই দক্ষযজ্ঞ বাধল জানে না পুলিশ। রবিবার রাতে মর্মান্তিক ঘটনাটি ঘটেছে উত্তরপ্রদেশের বিক্রমপুরের বাল্লিলা এলাকায়। জানা গিয়েছে, বাল্লিলাতে চলছিল বিবাহের অনুষ্ঠান। সন্ধ্যা হতেই অতিথি অভ্যাগতরা আসতে শুরু করেন। কনেপক্ষ আয়োজনের ত্রুটি রাখেননি। স্ন্যাক্স দিয়ে শুরুটা ভালোই হয়েছিল। ধীরে ধীরে ভিড় বাড়তে থাকে বিয়েবাড়িতে। একটা সময় খাবার পরিবেশনের সিদ্ধান্ত নেন ক্যাটারের কর্মীরা।
নিরাপত্তা ছাড়াই আচমকা এইমসে প্রধানমন্ত্রী, খোঁজ নিলেন বাজপেয়ীর শারীরিক অবস্থা নিয়ে
গতকাল রাতে আচমকা এইমস হাসপাতালে দেখা গেল প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে। কোনও নিরাপত্তা ও প্রটোকল ছাড়াই এইমস পৌঁছন তিনি। এমনকী তিনি যে আসছেন তার খবর নাকি হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের কাছেও ছিল না। প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী অটলবিহারী বাজপেয়ী কিছুদিন ধরে এইমসে ভর্তি। তাঁর শারীরিক অবস্থা স্থিতিশীল বলে চিকিৎসকরা জানিয়েছেন। প্রধানমন্ত্রী তাঁর খোঁজখবর নিতেই হাসপাতালে যান বলে খবর। জানা গিয়েছে, কোনও নিরাপত্তারক্ষী ও নির্দিষ্ট পথ নির্দেশিকা ছাড়াই ৭, লোককল্যাণ মার্গের বাসভবন থেকে বার হন প্রধানমন্ত্রী। ট্রাফিক নিয়ম যথাযথ মেনে হাসপাতাল পৌঁছন তিনি।
সপ্তাহের শেষেই কি দিল্লি-সহ উত্তর ভারতে মৌসুমী বায়ু ! যা বলছে আবহাওয়া দফতর
মাঝখানে প্রায় ১০ দিনের বিরতির পর ফের সক্রিয় দক্ষিণ-পশ্চিম মৌসুমী বায়ু। এই মুহুর্তে যা মধ্যভারত ও মহারাষ্ট্রের ওপর অবস্থান করছে। আবহাওয়া দফতরের পূর্বাভাস অনুযায়ী এবার মৌসুমী বায়ু এগিয়ে যেতে থাকবে। আর বৃষ্টিও তার ছন্দে ফিরে আসবে। দিল্লি-সহ উত্তর ভারতের কিছু অংশের ওপর মৌসুমী বায়ু অবস্থান করবে ২৯ জুন থেকে ১ জুলাইয়ের মধ্যে। মধ্য ভারত এবং উত্তর ভারতের সমতলভূমিতে বিগত দিনগুলিতে তাপমাত্রা বৃদ্ধি হয়েছিল। তবে এবার দু-থেকে তিন দিনের মধ্যে এই তাপমাত্রা বৃদ্ধি থেকে রেহাই মিলবে বলে অনুমান আবহ দফতরের।
মা মাওবাদী? অবাক অধ্যাপিকার মেয়ে
গোটা নাগপুর এক ডাকে চেনে বাঙালি অধ্যাপিকাকে। কারণ সোমা সেন শুধু ইংরেজি পড়িয়েই বসে থাকতেন না। জুনি মগলওয়াড়ির বস্তিতে ঘুরে বেড়াতেন। কোন মহিলাকে তাঁর স্বামী নেশা করে পেটাচ্ছে। কার বাপের বাড়ি থেকে পণ দিতে পারেনি বলে শ্বশুরবাড়ির লোকেরা নির্যাতন করছে। দলিত বলে কাকে অত্যাচারিত হতে হচ্ছে সে সব খোঁজ নিয়ে রুখে দাঁড়াতেন। কাউকে নিজেই বাড়িতে এনে তুলতেন। আশ্রয়ের খোঁজে কেউ নিজেই তাঁর বাড়িতে চলে আসত। সোমা সেনের মেয়ে কোয়েলের প্রশ্ন, নাগপুরের সবাই তো মাকে চেনে।
কথা রাখেনি রেল, সফর বাতিল ক্যানসার রোগীর
হাসপাতালের কাগজপত্র দেখালে টিকিটের ভাড়া নেওয়া হবে না এবং যে-কোনও সময় টিকিট 'কনফার্ম' বা নিশ্চিত করে দেওয়া হবে। ক্যানসার রোগীদের জন্য এই বিশেষ ব্যবস্থার স্থায়ী আশ্বাস আছে রেলের। কিন্তু সেই আশ্বাসে ভর করে টিকিট কেটেও ক্যানসারের চিকিৎসা করাতে শনিবার মুম্বই যেতে পারলেন না কলকাতার সুদীপ রায়। কেননা তাঁর টিকিট 'কনফার্মড' হয়নি। শুধু তা-ই নয়, শেষ মুহূর্ত পর্যন্ত চেষ্টা চালিয়েও রেলের কাছ থেকে কোনও সহযোগিতা মেলেনি বলে অভিযোগ সুদীপবাবুর। যাত্রা বাতিলের পরেও তাঁর বিড়ম্বনার কথা রেলকে জানাতে চেয়ে ব্যর্থ হয়েছেন তিনি।
খুঁটি গণধর্ষণে অভিযুক্ত আদিবাসী নেতারা
বন্দুকের নলের সামনে ধর্ষণের দৃশ্য ভিডিয়ো করে তা নির্যাতিতাদের মোবাইলে পাঠিয়েছিল দুষ্কৃতীরা। অভিযোগ করলে তা ছড়িয়ে করে দেওয়া হবে বলে হুমকিও দেওয়া হয়েছিল। স্থানীয় থানায় গিয়েও অভিযোগ না নেওয়ায় রাঁচীর পুলিশ সদর দফতরে হাজির হয়ে সেই ভিডিয়ো দেখানোয় নড়চড়ে বসে রাজ্য পুলিশ-প্রশাসন। গত ১৯ জুন ঝাড়খণ্ডের খুঁটি জেলার কোচাং আর সি মিশন স্কুলে মানুষ পাচারের বিরুদ্ধে নাটক করতে গিয়ে গণধর্ষিতা হন পাঁচ আদিবাসী তরুণী। সেই মামলার তদন্তে নেমে এমন তথ্যই পেয়েছে ঝাড়খণ্ড পুলিশ। তদন্তে পুলিশ জানতে পেরেছে, পাঁচ তরুণীকে ধর্ষণে ছ'জন জড়িত রয়েছে।
শ্যামাপ্রসাদ আবেগ উস্কে দিলেন মোদী
মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সাম্প্রতিক দিল্লি সফরের পর থেকে শুরু হওয়া দৈনিক বিক্ষোভ কর্মসূচিতে তখন নেতৃত্ব দিচ্ছিলেন বিজেপি নেতা বিজয় গয়াল। দিল্লিতে অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের বাড়ির সামনে। বেলা ১১টা বাজতেই বিক্ষোভ শিকেয় তুলে চালিয়ে দেওয়া হল নরেন্দ্র মোদীর 'মন কি বাত'। আর সেখানেই শ্যামাপ্রসাদ মুখোপাধ্যায়কে নিয়ে বাংলার আবেগ উস্কে দিতে চাইলেন মোদী। মাস দুয়েক আগে রেডিয়োতে 'মন কি বাত' অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী শুনিয়েছিলেন তাঁর রবীন্দ্রনাথ-ভক্তির কথা। বলেছিলেন, রোজ ভোর পাঁচটায় উঠে রেডিয়োতে রবীন্দ্রসঙ্গীত শুনতেন তিনি। যদিও আকাশবাণী কর্তৃপক্ষ ওই সময়ে কোনও অনুষ্ঠানের কথা মনেই করতে পারেনি।
বিজয়ন-মমতার ধাক্কা সামলাতে সক্রিয় সিপিএম
উপরাজ্যপালের বিরুদ্ধে দিল্লির মুখ্যমন্ত্রীর প্রতিবাদে গত সপ্তাহেই মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে সামিল হয়েছিলেন পিনারাই বিজয়ন। তৃণমূল নেত্রীর সঙ্গে বাম-শাসিত কেরলের মুখ্যমন্ত্রীকে এক যাত্রায় যেতে দেখে প্রশ্ন তুলেছিলেন বঙ্গ সিপিএমের নেতারা। শেষ পর্যন্ত বিজয়নের পদক্ষেপজনিত 'ক্ষতি' সামাল দিতে বাংলা ও ত্রিপুরায় 'গণতন্ত্রের হত্যা'র বিরুদ্ধে জাতীয় স্তরে কর্মসূচি নিচ্ছে সিপিএম। সেই সঙ্গেই অন্যান্য দলের নেতৃত্বকে তারা জানাবে, গণতন্ত্র রক্ষার প্রশ্নে বিজেপির সঙ্গে তৃণমূলের কোনও ফারাক নেই! অরবিন্দ কেজরীবালের ধর্নাকে সমর্থন জানিয়েছিল সিপিএম।
কেন্দ্রীয় কমিটিতে নতুন মুখ সিন্ধু
সিপিএমের কেন্দ্রীয় কমিটিতে জায়গা পেলেন কেরলের এ আর সিন্ধু। অঙ্গনওয়াড়ি কর্মীদের সংগঠনের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক তিনি। তাঁর স্বামী পি কৃষ্ণপ্রসাদ সর্বভারতীয় কৃষক সভার নেতা। সিন্ধুকে নিয়ে কেন্দ্রীয় কমিটিতে যেমন তরুণ রক্তের সংযোজন হল, তেমনই মহিলা মুখের সংখ্যাও বেড়ে হল ১৫। কেরল থেকে নতুন মুখ কেন্দ্রীয় কমিটিতে জায়গা পেলেও ওই রাজ্য নিয়ে অবশ্য অন্য বিড়ম্বনায় পড়েছে সিপিএম। পালাক্কাডে রেল কোচ কারখানা কেন বন্ধ করে দেওয়া হচ্ছে, সেই প্রশ্ন তুলে দিল্লিতে ধর্না-প্রতিবাদে সামিল হয়েছিলেন কেরলের মুখ্যমন্ত্রী পিনারাই বিজয়ন।
'আক্রান্ত' সুষমার পাশে কংগ্রেস
গোটা সপ্তাহটা বিদেশ সফরে ব্যস্ত ছিলেন। পাসপোর্ট অফিসে ধর্ম নিয়ে দম্পতিকে হেনস্থার অভিযোগ নিয়ে বিতর্কের কথা জানতেন না। আজ দেশে ফিরে এ কথা জানালেন বিদেশমন্ত্রী সুষমা স্বরাজ। লখনউয়ের পাসপোর্ট অফিসের ওই ঘটনার পরই তড়িঘড়ি সংশ্লিষ্ট অফিসার বিকাশ মিশ্রকে বদলি করা ও ওই দম্পতিকে পাসপোর্ট দিয়ে দেওয়া নিয়ে সমালোচনার ঝড় তুলেছে বিজেপি, আরএসএস এবং তাদের সমর্থকদের একটি অংশ। সোশ্যাল মিডিয়ায় কেউ লিখেছেন, উনি তো মরতে বসেছিলেন। অন্যের কাছ থেকে ধার করা একটি কিডনি নিয়ে বেঁচে আছেন। সেটিও কখন বিকল হবে ঠিক নেই।
রাজ্য জুড়ে মোতায়েন করা হচ্ছে পুলিশের মহিলা ব্যাটেলিয়ন
মহিলাদের সুরক্ষাকে সুনিশ্চিত করতে মহিলা পুলিশের বিশেষ দল নিয়োগের সিদ্ধান্ত নিলেন উত্তরপ্রদেশ পুলিশ বিভাগ। গত শুক্রবার ইউপি ডিজিপি ওম প্রকাশ সিং এমনটাই ঘোষণা করেছেন। তিনি বলেন, রাজ্যে প্রথম এই ধরণের উদ্যোগ নেওয়া হতে চলেছে। বিশেষ দলটিতে প্রাথমিকভাবে থাকছে ১,০০০ কন্সটেবল। দলটির মূল লক্ষ্য হল, রাজ্যের মহিলাদের নিরাপত্তা। এছাড়া, মহিলাদের প্রয়োজনে একটি হেল্পলাইন চালু করার কথাও ভাবা হচ্ছে। পুরো বিষয়টিকে অনুমোদনের জন্য রাজ্য সরকারের কাছে পাঠানো হয়েছে। সাংবাদিক বৈঠকে সিং বলেন, হেল্পলাইন আনার মূল উদ্দেশ্য হল বিপদে পড়া কোন মহিলাকে সত্বর সাহায্য করা।
বৃষ্টির প্রার্থনা, কার্ড ছাপিয়ে ব্যাঙের বিয়ে দিলেন মন্ত্রী
ব্যাঙের বিয়ে দিলেই নাকি বৃষ্টি হয়! আর তাই ঘটা করে কার্ড ছাপিয়ে, মালা বদল করিয়ে যাবতীয় প্রথা মেনে বিয়ে দেওয়া হল একজোড়া ব্যাঙের। আর ব্যাঙের বিয়ের যাবতীয় আয়োজন করলেন মধ্যপ্রদেশের মন্ত্রী ললিতা যাদব। শিশুকল্যাণ দফতরের মন্ত্রী ললিতা যাদবের উদ্যোগে এই বিয়ের অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণ করেন রাজ্যের আরও কয়েকজন নেতা। এরপরই শুরু হয় বিতর্ক। ছাত্তারপুরের মন্দিরে এই বিয়ের আয়োজন করা হয়। বিয়ে উপলক্ষে কয়েক হাজার গ্রামবাসীও উপস্থিত ছিলেন। এই জাতীয় বিয়ের আয়োজন করে নেতা নিজেই কুসংস্কার ছড়িয়ে দিচ্ছেন, এমন অভিযোগ আনেন রাজ্যের কংগ্রেস নেতা অলোক চতুর্বেদী।
মোদীকে বার্তা, লোকসভা ভোটের আগেই নতুন দল গড়লেন এক সময়ের 'সঙ্গী' প্রবীণ
লোসকভার আগে বিশ্ব হিন্দু পরিষদের প্রাক্তন সভাপতি প্রবীণ তোগাড়িয়া নতুন দল গড়লেন। বুধবার আনুষ্ঠানিকভাবে তাঁর দলের আত্মপ্রকাশ হল। সঙ্গে সঙ্গেই দলের নতুন নাম ঘোষণা করলেন তিনি। তিনি জানিয়ে দিলেন, তাঁর নতুন দল অন্তঃরাষ্ট্রীয় হিন্দু পরিষদ। তাঁর এই সংগঠন আদর্শ মেনে নতুন ভাবে কাজ করবে। প্রবীণ তোগাড়িয়া জানিয়েছেন, তিনি যে লক্ষ্যে আগে কাজ করতেন, সেই লক্ষ্য নিয়েই চলবেন। তিনি আদর্শচ্যুত হবেন না। তাঁর লড়াই ছিল বিশ্বহিন্দু পরিষদের আদর্শচ্যুত হয়ে পড়ার বিরুদ্ধে। তিনি সেই কারণে আমরণ অনশনে বসেছিলেন। তাঁকে দলীয় পদ থেকে সরতে হয়েছিল।
'গান্ধী পরিবারের চার প্রজন্মের কেউ মন্দিরে যায়নি'
যোগী আদিত্যনাথের তোপের নিশানায় কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গান্ধী। গান্ধী পরিবারের চার প্রজন্ম ধরে কেউ কখনও মন্দিরে যাননি। শুধু তাই নয়, তাঁরা পৈতেও ধারণ করেননি। রবিবার উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ এই ভাষাতেই আক্রমণ করলেন গান্ধী পরিবারকে। কনৌজে এক অনুষ্ঠানে এসে বক্তব্য রাখার সময় এই বক্তব্য তুলে ধরেন। আদিত্যনাথের অভিযোগ মন্দিরে যাওয়ার জন্য নাটক করেন রাহুল। তাঁর মন্দিরে যাওয়া একটা রাজনৈতিক গিমিক ছাড়া আর কিছু নয়। Advertisement - তাঁর আরও মন্তব্য ভোট কাছে এলেই মন্দির আর দেবতাকে মনে পড়ে কংগ্রেস সভাপতির।
ফের মুম্বইয়ের আবাসনে ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ড
দীপিকা পাড়ুকোনের আবাসনে আগুন লাগার পর দু'সপ্তাহও কাটল না। ফের মুম্বইয়ে ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ড। এবার ভয়াবহ আগুন লাগল গিরগাঁও এলাকার একটি বহুতল ভবনে। তবে হতাহতের কোনও খবর নেই। পুলিশ ও দমকল সূত্রে জানা গিয়েছে, এদিন সন্ধ্যায় গোরেগাঁওকর লেনের সেন্ট্রাল প্লাজা সিনেমা হলের কাছে চারনি রোডের কোঠারি হাউসে প্রথমে তিন তলার একটি ঘর থেকে ধোঁয়া বেরোতে দেখেন এলাকাবাসী। তাঁরা দমকলে খবর পাঠান। অল্প সময়ের মধ্যেই আগুন ছড়িয়ে পড়ে চার তলা সহ আশপাশের ঘরগুলিতেও।
কুসংস্কারের নজির গড়ে ব্যাঙের বিয়ে দিলেন বিজেপি মন্ত্রী
কুসংস্কারের নজির গড়লেন খোদ বিজেপির মন্ধত্রী। ব্যাঙের বিয়ে দিলে বৃষ্টি হয়, এমনটা অনেকেই বিশ্বাস করেন। আর সেটাই করে দেখালেন মধ্যপ্রদেশের বিজেপির এক মন্ত্রী। যেমন তেমনভাবে বিয়ে নয়, ঘটা করে কার্ড ছাপিয়ে, মালাবদল করিয়ে যাবতীয় প্রথা মেনে বিয়ে দেওয়া হল একজোড়া ব্যাঙের। আর ব্যাঙের বিয়ের যাবতীয় আয়োজন করলেন ওই বিজেপি নেতা। মধ্যপ্রদেশের নারী ও শিশুকল্যাণ দফতরের মন্ত্রী ললিতা যাদব এই বিয়ের আয়োজন করেন। অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণ করেন রাজ্যের আরও কয়েকজন নেতা। এরপরই শুরু হয় বিতর্ক। Advertisement - মধ্যপ্রদেশের ছাত্তারপুরের মন্দিরে এই বিয়ের আয়োজন করা হয়।

Want to stay updated ?

x

Download our Android app and stay updated with the latest happenings!!!


90K+ people are using this